সোমবার, ৬ ডিসেম্বর ২০২১ | ২১শে অগ্রহায়ণ ১৪২৮

নারী-উদ্যোক্তা সহায়ক ডিরেক্টরি প্রকাশ

জাগরণ ডেস্ক //

এসএমই ফাউন্ডেশনের সহায়তায় প্রথমবারের মত দেশের নারী-উদ্যোক্তাদের জন্য সহায়ক ১৪টি সংস্থার একটি ডিরেক্টরি প্রকাশ করেছে ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড সেন্টার (আইটিসি) শীট্রেডস।
সোমবার অনলাইন প্ল্যাটফর্মে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে ‘বাংলাদেশ বিজনেস সাপোর্ট অর্গানাইজেশন ডিরেক্টরি’ প্রকাশ করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন শিল্পসচিব কে এম আলী আজম। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে এসএমই ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সফিকুল ইসলাম এবং জেনেভা আইটিসি শীট্রেডস কমনওয়েলথের প্রোগ্রাম ম্যানেজার সাইমন বাফে বক্তব্য রাখেন।
অনুষ্ঠানে জানানো হয়, এই ডিরেক্টরিতে বাংলাদেশের নারী-উদ্যোক্তাদের জন্য সহায়ক ১৪টি সংস্থার তথ্য রয়েছে। এর মধ্যে আইটি ও বিজনেস প্রসেস আউটসোর্সিং (বিপিও) খাতের ৪টি সংস্থা হলো : বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব কল সেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিং (বিএসিসিও), বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড আইটি সার্ভিসেস (বেসিস), বাংলাদেশ উইমেন ইন টেকনোলোজি (বিডব্লিউআইটি) এবং ই-কর্মাস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব)। নারী-উদ্যোক্তাদের সহায়ক ৭টি সংস্থা হলো: বাংলাদেশ ফেডারেশন অব উইমেন এন্ট্রাপ্রিনিয়রস (বিএফডব্লিউই), চিটাগাং উইমেন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (সিডব্লিউসিসিআই), ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই), কিশোরগঞ্জ উইমেন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (কেডব্লিউসিসিআই),পটুয়াখালী উইমেন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (পিডব্লিউসিসিআই), এসএমই ফাউন্ডেশন (এসএমইএফ) এবং উইমেন এন্ট্রাপ্রিনিয়রস অ্যাসোসিয়েশন (ডব্লিউইএ)। বস্ত্র ও পোশাকখাতের তিন সংস্থা : বাংলাদেশ হ্যান্ডিক্রাফ্টস ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (বাংলাক্রাফ্ট), একতা ফেয়ার ট্রেড ফোরাম এবং জুট ডাইভারসিফিকেশন অ্যান্ড প্রোমোশন সেন্টার (জেডিপিসি)। ডিরেক্টরিতে নারী-উদ্যোক্তাদের জন্য এসব সংস্থার বিস্তারিত সেবাসমূহের বিবরণ এবং যোগাযোগের প্রয়োজনীয় তথ্য তুলে ধরা হয়েছে।
অনুষ্ঠানে শিল্পসচিব কে এম আলী আজম বলেন, দেশের জনসংখ্যার অর্ধেক নারীকে বাদ দিয়ে প্রকৃত উন্নয়ন সম্ভব নয়। তাই নারী বান্ধব ব্যবসার পরিবেশ তৈরিতে কাজ করছে সরকার। দেশের নারী-উদ্যোক্তাদের করোনাভাইরাস পরবর্তী অর্থনৈতিক পূনরুদ্ধার কার্যক্রমে অংশ নিয়ে আবারো ঘুরে দাঁড়াতে এই ডিরেক্টরি সহায়ক হিসেবে কাজ করবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
এসএমই ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সফিকুল ইসলাম বলেন, দশ বছর আগেও শতকরা ৪৩ ভাগ অভিভাবক তাদের মেয়ে সন্তানদের উদ্যোক্তা হওয়ার পক্ষে মত দিতেন না। কিন্তু সেই পরিস্থিতির পরিবর্তন হয়েছে, নারীরা এখন উদ্যোক্তা হতে আগ্রহী। এই ডিরেক্টরি উদ্যোক্তা বিকাশে সহায়ক হবে বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

সংবাদটি আপনার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন