রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২ | ১২ই অগ্রহায়ণ ১৪২৯

৮৯ লাখ স্মার্ট মিটার স্থাপন করবে বিআরইবি

জাগরণ ডেস্ক //

সরকারের স্মার্ট প্রি-পেইড মিটার ব্যবস্থার আওতায় বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (বিআরইবি) সারা দেশে ৮৯ লাখ মিটার স্থাপনের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে।

বিআরইবি’র চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল অব. মঈন উদ্দিন সোমবার বাসস-কে বলেন, ‘এখন পর্যন্ত আমরা সারা দেশে ১১ লাখ ১০ হাজার ৫৬৮টি স্মার্ট প্রিপেইড মিটার স্থাপন করেছে।’

তিনি বলেন, বিআরইবির নিজস্ব ও সরকারের অর্থায়নে আগামী তিন বছরের মধ্যে এই ৮৯ লাখ স্মার্ট প্রিপেমেন্ট মিটারের মধ্যে প্রায় ৩৯ লাখ মিটার স্থাপন সম্পন্ন হবে। তিনি বলেন, বিআরইবি ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি)’র আওতায় ৭ লাখ স্মার্ট প্রিপেমেন্ট মিটার স্থাপন করেছে।

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ টেলিফোনে বাসস-কে বলেন, সরকার সিস্টেম লস ও ভূতুড়ে বিল এড়াতে সকল গ্রাহককে স্মার্ট প্রিপেমেন্ট মিটারিং সিস্টেমের আওতায় আনার পরিকল্পনা করেছে।

তিনি বলেন, ‘আমরা ইতোমধ্যেই ৯৮ শতাংশ মানুষকে বিদ্যুতায়নের আওতায় আনতে সক্ষম হয়েছি এবং মুজিব বর্ষের মধ্যেই প্রতিটি মানুষের ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দিব।’ নসরুল হামিদ বলেন, সরকার বিদ্যুৎ রিচার্জের ওপর ১% রেয়াত দিচ্ছে। তাই ভূতুড়ে বিল, গ্রাহক ভোগান্তি বা এ ধরনের অন্যান্য সমস্যার কোনই আশঙ্কা নেই। সরকার ২০২৫ সালের মধ্যে বিদ্যুৎ বিল সিস্টেমে স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে ২ কোটি পুরনো মিটার বদল করে প্রিপ্রেইড মিটার স্থাপনের কাজ শুরু করেছে। নসরুল বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সৎ ও আন্তরিক নেতৃত্বে সরকার মুজিব বর্ষের মধ্যেই প্রতিটি ঘরে বিদ্যুৎ সরবরাহের ব্যাপারে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’

২০২০-২০২১ অর্থবছরের মধ্যে বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানিগুলো ২২ লাখ ২৬ হাজার ৬শ’ স্মার্ট প্রিপেমেন্ট মিটার স্থাপন করবে উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার সকল নাগরিককে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের লক্ষ্যে অক্লান্তভাবে কাজ করছে।’

বিআরইবি’র তথ্য অনুযায়ী, বিআরইবি’র আওতাধীন গ্রাহকের মোট সংখ্যা ২ কোটি ৮৯ লাখ। ২০২১ অর্থবছরে বিআরইবি নতুন করে ৩০ হাজার কিলোমিটার বৈদ্যুতিক লাইন জুড়ে দিয়েছে এবং নতুন করে ৬ লাখ স্থাপনায় বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করা হবে।

বিআরইবি চেয়ারম্যান বলেন, সংস্থাটির নিজস্ব অর্থায়নে ২০২১ অর্থবছরে ৫০ হাজার স্মার্ট প্রিপেমেন্ট মিটার স্থাপনের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এর ফলে মোট প্রিপেইড মিটার গ্রাহকের সংখ্যা বেড়ে ১১ লাখ ১০ হাজার ৫৬৮টিতে দাঁড়াবে।

সূত্র: বাসস

সংবাদটি আপনার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন